আত্মহত্যা করলেন জনপ্রিয় কোরিয়ান তারকা সুলি?

আত্মহত্যা করলেন জনপ্রিয় কোরিয়ান তারকা সুলি?

পপ তারকা সুলি তার স্পষ্টবাদী বক্তব্য ও ‘বিতর্কিত’ কর্মকাণ্ডের জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ সমালোচিত ছিলেন। তার ‘নো ব্রা’ আন্দোলনে সমর্থন ছিল না অনেকের। তাই বিষয়টি নিয়ে তাকে অনলাইনসহ নানা মাধ্যমে অনেকবার হয়রানির শিকার হতে হয়েছে।

নারীদের জন্য ‘নো ব্রা’ আন্দোলনের সক্রিয় সদস্য এবং দক্ষিণ কোরিয়ার জনপ্রিয় পপ তারকা সুলির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তার ঘর থেকে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে পুলিশ ধারণা করলেও সুলি ‘নো ব্রা’ আন্দোলনের জন্য বিতর্কিত হওয়ায় তার এমন মৃত্যু নিয়ে নানা প্রশ্ন ও গুঞ্জন তৈরি হয়েছে। বিবিসির প্রতিবেদনে পুলিশের বরাতে জানানো হয়েছে, সুলি দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে নিজের বাড়িতে বসবাস করতেন। সোমবার তার ম্যানেজার বাড়িতে গিয়ে সুলির মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ বলছে, তারা সুলির অস্বাভাবিক এই মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে। তবে প্রাথমিক তদন্তে অনুমান করেছে যে সুলি আত্মহত্যা করেছেন। প্রসঙ্গত, ২০১৫ সাল পর্যন্ত সুলি দক্ষিণ কোরিয়ার জনপ্রিয় ব্যান্ড এফের (এক্স) সদস্য ছিলেন। ২০১৫ সালে যখন ব্যান্ড ছেড়ে দেন তখন তিনি কারণ হিসেবে অভিনয়ের দিকে বেশি মনযোগ দেয়ার কথা জানান। অনেকে মনে করেন, সুলিকে নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হওয়ার পর তাকে ব্যান্ড থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে তার অনুসারীর সংখ্যা ৫০ লাখের বেশি।

সুলির প্রকৃত নাম চোই জিন রি। ২০১৭ সালে সুলির ঘনিষ্ঠ বন্ধু আরেক কোরিয়ান পপ তারকা জং হিউন ২৭ বছর বয়সে আত্মহত্যা করেন। সুলি সম্পর্কে বিবিসির বিনোদন সাংবাদিক টেইলর গ্লাসবি বলেন, ‘মুক্তমনা সুলি নিজের মতো জীবন যাপন করতে চাইতেন। কিন্তু রক্ষণশীল কোরীয় সমাজ তা মেনে নিত না।’

ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্টস করুনঃ

কমেন্টস